সোশ্যাল মিডিয়ায় কড়া নজরদারি: উসকানিমূলক পোস্ট দিলে রেহাই নেই

0
25
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

নড়াইল কণ্ঠ : জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় কড়া নজরদারি রাখছে সরকার। ফেসবুক, ব্লগ কিংবা টুইটারে উসকানিমূলক পোস্ট দিলে আর রেহাই নেই। তবে কেবল পোস্ট দাতাই নয়, কমেন্ট কিংবা লাইক দাতারাও মুহূর্তের মধ্যে চলে আসবে নজরদারির মধ্যে। এবারের নির্বাচনে প্রযুক্তি ব্যবহার করে উন্নয়নমূলক প্রচারণার জন্য মিডিয়ার ব্যবহার করতে চায় সরকার। কিছুদিন আগে দেশে নিরাপদ সড়ক দাবিতে কিশোর আন্দোলনের সময় উস্কানিমূলক, গুজব, ভিত্তিহীন কিছু খবর ছড়িয়ে পড়ায় নির্বাচনকে সামনে রেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় নজরদারি করা হবে।

বর্তমান সরকার দুই মেয়াদে দশ বছর ক্ষমতায় আছে। এই দশ বছরে সরকার দৃশ্যমান উন্নয়ন করেছে। দেশকে নিয়ে যাচ্ছে উন্নত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার লক্ষ্যে। এই দশ বছরের সাফল্য গাঁথা প্রচার করা হবে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেই সাথে সরকারবিরোধী অপপ্রচার ঠেকাতে বেতার, টেলিভিশনসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব ব্যবহারের ওপর সংশ্লিষ্টদের জোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

দেশে প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ভার্চুয়াল জগতে প্রবেশ করছে দেশের তরুণ তরুণী। ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে দেশের তরুণ তরুণীরা বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য পেয়ে থাকে। উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে সরকারের বিরুদ্ধে তৈরি করা গুজবেও অনেকে প্রভাবিত হচ্ছে। আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারবিরোধী অপতৎপরতার আশঙ্কা করছে অনেকে। আর এসব ক্ষেত্রে ফেসবুক, ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো ব্যবহার করে থাকেন অপপ্রচারকারীরা। এসব অপতৎপরতা ঠেকানোর পাশাপাশি সরকারের দশ বছরের সাফল্য প্রচারের উদ্যোগ নিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক নিয়মিত আপডেট করার নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রয়োজনে ফেসবুকে বুস্টিং করতে বলা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে ১০ বছরের সাফল্য আপলোড করতে হবে বলেও জানানো হয়েছে ।
সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়াও বাংলাদেশ বেতারসহ সব বেতারে প্রচারের জন্য অডিও ক্লিপ, বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ সব টেলিভিশনে প্রচারের জন্য ভিডিও ক্লিপ তৈরি করতে বলা হয়েছে তথ্য কর্মকর্তাদের। ইউটিউবে প্রচারের জন্য ছোট ছোট ভিডিও ক্লিপ তৈরি করতে হবে বলেও নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বর্তমানে সত্য ঘটনার সাথে গুজবও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এই গুজবে অনেকে বিশ্বাস করে বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে। এজন্য সরকার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। সেই সাথে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সরকারের সাফল্যও তুলে ধরা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here