শেখ হাসিনার প্রশংসায় জাতিসংঘ

0
28
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সততা, নিষ্ঠা, রাজনৈতিক দৃঢ়তা, গণতন্ত্র, শান্তি, সম্প্রীতি ও বিশ্বভ্রাতৃত্বের অনন্য রূপকার, মানব কল্যাণে নিবেদিত প্রাণ। অসংখ্য আত্মত্যাগের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও বিশ্বমানবতার জন্য নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর নেতৃত্বেই বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।

শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রস্তুত হচ্ছে বাংলাদেশ। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে বিশ্বের অনেকেই বিস্ময় প্রকাশ করেছেন, বিভিন্ন রাষ্ট্রনেতারা শেখ হাসিনার কাছে জানতে চাইছেন এই উন্নয়ন ম্যাজিকের রহস্য। বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়নে শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বের প্রশংসা করেছেন একাধিক বিশ্বনেতা। সেই ধারাবাহিকতায় এবার শেখ হাসিনার প্রশংসা করে চিঠি দিয়েছে জাতিসংঘ।

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশ সরকারের উদারতার প্রশংসা করেছে জাতিসংঘ ও বিশ্বব্যাংক। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেয়া এক চিঠিতে জাতিসংঘ মহাসচিব এন্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করে তারা বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রতি বিশ্বসমর্থন আদায়ে আপনার ব্যক্তিগত নেতৃত্বের বিষয়টি ছিল উল্লেখ করার মত। চলতি বছরের ৩০ জুন থেকে ২ জুলাই ঢাকা ও কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনের কথা উল্লেখ করে জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রেসিডেন্ট বলেন, এই যৌথ সফরের মধ্যদিয়ে তারা আন্তর্জাতিক মহলের সহায়তা বাড়ানোর জরুরি প্রয়োজনীয়তাসহ বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জসমূহ সম্পর্কে আরো সচেতন হয়েছেন।

এ প্রেক্ষিতে বিশ্বব্যাংক গ্রুপ বাংলাদেশ সরকারের সাথে নিবিড় অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে সংকটের মধ্যমেয়াদি প্রভাব মোকাবেলায় ৪৮ কোটি মার্কিন ডলার অনুদান ভিত্তিক সহায়তা ঘোষণা করেছে।

চিঠিতে তারা আরো বলেন, আমরা ২০৩০ সালের টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা বাস্তবায়নে আপনার এবং আপনার সরকারের সাথে জড়িত হওয়ার সুযোগেরও প্রশংসা করছি।

জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রেসিডেন্ট উভয়ে স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উত্তরণে বাংলাদেশের চমৎকার অগ্রগতির জন্যে শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান।

তারা বলেন, অগ্রগতির এ ধারা অব্যাহত রাখতে এবং ২০৩০ সালের এজেন্ডা বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করতে আগামী কয়েক বছর বাংলাদেশের জন্যে খুবই গুরুত্বপূর্ণ সময়। জাতিসংঘ ও বিশ্বব্যাংক গ্রুপ উভয়ে এ বিষয়ে বাংলাদেশকে অব্যাহত সহায়তার অঙ্গীকার করেছে।

বাংলাদেশ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে অগ্রযাত্রা শুরু করেছে তা অব্যাহত থাকলে অচিরেই বাংলাদেশ উন্নত দেশের মর্যাদা পাবে বলে চিঠিতে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে জাতিসংঘ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here