খালেদা জিয়া অবশেষে নির্বাচনে অংশগ্রহণের শর্তেই মুক্তি চায়!

43

নড়াইল কণ্ঠ : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরে কারাদণ্ড ভোগ করছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ঘাড়ে ঝুলে আছে আরও প্রায় দেড় ডজন মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা। প্রায় সাত মাস কারান্তরীণ খালেদার মুক্তিতে বিএনপির পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি দেয়া হলেও কেন্দ্রীয় বিএনপি এবং তৃণমূলের একাগ্রতা ও ঐক্যের অভাবে তা বাস্তবে রূপ নেয়নি। ফলে নিরূপায় হয়ে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের শর্তেই মুক্তি চায় খালেদা জিয়া।
বিএনপির একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাতে জানা যায়, বিএনপির পক্ষ হতে এখন পর্যন্ত নির্বাচনে যাওয়া-না যাওয়া নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো বার্তা আসেনি। তবে সর্বশেষ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী খালেদা জিয়ার পুত্রবধূ সৈয়দা শর্মিলা রহমানের কাছে কারামুক্তির সাপেক্ষে নির্বাচনে অংশগ্রহণের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন খালেদা জিয়া। দলীয় প্রধানের এমন ইচ্ছানুসারে খুব গোপনে সরকার দলীয় একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগও করা হচ্ছে। সরকার দলের সমর্থন পেলেই কোনো শর্ত ছাড়াই কেবল খালেদা মুক্তির শর্তেই নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি।
সূত্র জানায়, বেগম জিয়ার অন্তত দু’জন আত্মীয় নিয়মিতভাবে সরকারের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। বেগম জিয়ার ছোটভাই শামীম ইস্কান্দার যেকোনো শর্তে বেগম জিয়ার মুক্তির আবেদন করেছেন। বিএনপি’র নির্বাচনে যাবার শর্তে বেগম জিয়ার জামিনের ব্যাপারে সরকারের নমনীয় অবস্থান প্রত্যাশা করছে খালেদা জিয়। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এরইমধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন, বেগম জিয়ার কারামুক্তি কোনো রাজনৈতিক বিষয় নয়, মামলাটি বিচারবিভাগ সংক্রান্ত। সুতরাং এখানে সরকারের হস্তক্ষেপের কোনো সুযোগ নেই।
বিএনপির একজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, বেগম জিয়ার মুক্তিই আমাদের নির্বাচনে যাবার প্রধান শর্ত। বেগম জিয়ার মুক্তি ছাড়া আমরা নির্বাচনের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কোনো সিদ্ধান্ত জানাবো না। সরকারের দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, বেগম জিয়া মুক্তি পেলে নির্বাচনে যাবে, এমন সিদ্ধান্তে নিশ্চয়তা দিতে চাইছে বিএনপি।বিএনপিতে নির্বাচনে যাবার পক্ষের নেতারা বলছেন, আমাদের তো নির্বাচনে যাবার একটা উপলক্ষ দিতে হবে। বেগম জিয়া জামিনে মুক্তি পেলে অন্তত একটা যুক্তি বা অর্জন আমরা নির্বাচনে যাবার পক্ষে দেখাতে পারবো। আমাদের তো কিছু একটা বোঝাতে হবে কর্মীদের। শেষ পর্যন্ত বেগম জিয়ার মুক্তির শর্তে বিএনপি জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে সক্ষম হবে কিনা তা-ই এখন রাজনৈতিক অঙ্গনে বড় প্রশ্ন।