নড়াইল চিত্রাব্রীজ নির্মাণ বন্ধ

185

নড়াইল কণ্ঠ : এলজিইডি’র নকশাকারদের গাফিলতির কারনে নড়াইলের ফেরিঘাট পয়েন্টে চিত্রা ব্রীজ নির্মাণ বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে।চিত্রা ব্রীজের কাজ ৩মাস বন্ধ, নকশা জঠিলতা ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারনে ব্রীজের মুল কাজ বন্ধ রয়েছে।বার বার তাগিদ দেয়ার সত্ত্বেও কোন অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না। এর জন্য মুলত: দায়ীরা হলেন এলজিইডি’র অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (নকশা) ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী(নকশা)। তারা কোন রূপ গুরুত্ব দিচ্ছেন না। গত শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নড়াইল প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময়কালে বাস্তবায়নাধিন “এমবিইএল-ইউডিসি জেভি” ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী ও ইউডিসি কনস্ট্রাশনের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ইঞ্জিনিয়ার কামাল হোসেন এসব তথ্য জানান।

তিনি সাংবাদিকদের আরো জানান, সর্তানুযায়ী এ বছরের ২৪ অক্টোবর ব্রীজ নির্মানের কাজ সম্পন্ন করার কথা। ইতমধ্যে এ প্রকল্পের পিডি সরেজমিনে পরিদরশন করেছেন।স্থানীয় জেলা প্রশাসক মো: হেলাল মাহমুদ শরীফ, জেলা পরিষদের প্রশসাক অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময় করে ব্রীজের নকশা পরিবর্তন হলে সমস্যা সমাধান সম্ভব বলে একমত পোষন করেন। তাতে আর্থিক কোন ক্ষতি হবে না। বিষয়টি এলজিইডি’র নকশা বিভাগের গাফিলতির কারনেই হয়নি। বিষয়টি মিডিয়ার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।তিনি আরো জানান, এবছরের জানুয়ারী মাসের মধ্যে অন্তত ৫০% কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও বর্তমানে ৩৩% কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে নড়াইল অংশে কাজ প্রায় বন্ধ রয়েছে।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী ইঞ্জিনিয়ার কামাল হোসেনের এসব তথ্য জেনে স্থানীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, সুশীল সমাজসহ নড়াইলবাসি হত্যাশ। এ ব্রীজ সময় মতো না হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বড় ধরনের আন্দোলনে নামার ইঙ্গিতও দিয়েছেন তারা।

এ সমস্যার সমাধান না হলে নির্ধারিত সময় এ বছরের অক্টোবর মাসে শেষ করা সম্ভব হবে না। দ্রুত নকশা পরিবর্তন করে ব্রীজটির কাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে নড়াইলের সর্বস্তরের জনগন।