বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসায় ইউএসএআইডির মিশনপ্রধান

27

বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রশংসা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থার (ইউএসএআইডি) নতুন মিশনপ্রধান ও মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ডেরিক এস ব্রাউন।
শুক্রবার (১৭ আগস্ট)এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন উন্নয়নশীল দেশে ২৮ বছর ধরে কাজ করার পর আমি সম্প্রতি ইউএসএআইডির ঢাকার নতুন পরিচালক হিসেবে এখানে এসেছি। মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যেই এই ঢাকা শহরের প্রাণোচ্ছলতা, বাংলাদেশিদের বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভাব আর তাদের হৃদয়ের উষ্ণতা পেয়েছি।
ডেরিক এস ব্রাউন আরো বলেন, বাংলাদেশে আসার ঠিক আগে আফ্রিকার অ্যাঙ্গোলায় ছিলাম। সেখানে আমি দেশটির সরকার এবং নাগরিক সমাজসহ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে কাজ করতাম। গণতন্ত্রকে সুসংহত করা, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও বাণিজ্য বৃদ্ধি, স্বাস্থ্য পরিসেবা ও সুপেয় পানি সরবরাহের আওতা বাড়ানো এবং দুর্যোগের প্রভাব প্রশমনে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে অ্যাঙ্গোলায় কাজ করেছি।
বাংলাদেশ সরকার এবং এদেশের মানুষের সঙ্গে ইউএসএআইডির দীর্ঘ ও কার্যকর সম্পর্ক রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এদেশকে ভবিষ্যতে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করার প্রত্যাশায় আনন্দিত। এই লক্ষ্য অর্জনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের যাত্রা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। তবে সঠিক পথে যাত্রা অব্যাহত রাখা নিশ্চিত করতে আরও অনেক কিছু করার আছে। এসব লক্ষ্য অর্জনে আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।
উল্লেখ্য, ডেরিক ব্রাউন ইউএসএইড বাংলাদেশে যোগ দেওয়ার আগে ২০১৬ থেকে ইউএসএআইডি অ্যাঙ্গোলার মিশনপ্রধান ছিলেন। তিনি ইউএসএআইডি ইন্দোনেশিয়ায় তিন বছর মিশন উপপ্রধান ও এক বছর ভারপ্রাপ্ত মিশনপ্রধান হিসেবেও কাজ করেন।
যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জানায়, ডেরিক ব্রাউন যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দপ্তরের কাউন্সেলর পর্যায়ের একজন কর্মকর্তা। উন্নয়নবিষয়ক কাজে তার ২৮ বছরেরও বেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে।