লুমিনের ‘বঙ্গবন্ধু’ গানের ভিডিও চিত্রায়িত

43

মেহেরপুরের মুজিবনগরে ও ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে চিত্রায়িত হলো একটি গান, সেই গানের শিরোনাম- বঙ্গবন্ধু।
শোকের মাসে ‘বঙ্গবন্ধু’ গানটি গেয়েছেন ফিডব্যাক ব্যান্ডের ভোকাল লুমিন। সেদিনের সূর্যটা আলো নিয়ে নয়, উঠেছিল যেন শুধু রক্ত মেখে, অবাক চোখ মেলে বিশ্ববাসী, বীভৎস করুণ এক দৃশ্য দেখে, ঘাতকের বুলেটে ঝাঁঝরা হলো, জাতির পিতার বুকের জমিন, শান্তির লাখো পাখি উড়ে গেল, ১৫ আগস্টের কালো সেই দিন। কাঁদো বাঙালি আজ কাঁদো সবাই, কান্নাতে পাবে পৃথিবীর সব সুখ, কোটি মানুষের প্রাণ–স্পন্দনে, পিতা, তুমিই বাংলার মুখ।
শোক দিবস উপলক্ষে এমন কথার গানটি লিখেছেন পুলিশ সুপার দেওয়ান লালন আহমেদ। গানটির সুর করেছেন সাজেদ ফাতেমী। সঙ্গীত আয়োজন করেছেন জে আর সুমন। মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন সৈয়দ তানভীর আহমেদ। ডিওপি মাজহারুল রাজু।
গানটি প্রসঙ্গে লুমিন বলেন, ‘গানের কথা ও সুর দুটোই আমার ভীষণ ভালো লেগেছে। কঠিন পেশা ও কর্মব্যস্ততার মাঝে গানটি লিখেছেন একজন পুলিশ কর্মকর্তা। তার লেখনিতে পিতা হারানোর যে কষ্ট উঠে এসেছে আমি মুগ্ধ হয়েছি। সুন্দর গানটি সুন্দরভাবে গাওয়ার চেষ্টা করেছি।
গানটির গীতিকার দেওয়ান লালন আহমেদ বলেন, ‘বুকের মাঝে ধারণ করি দেশপ্রেম, ধারণ করি মহান মুক্তিযুদ্ধ, বুকের মাঝে ধারণ করি মহান নেতা বঙ্গবন্ধুকে। সেই প্রত্যয় বুকে নিয়ে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে বঙ্গবন্ধুর স্মরণে নতুন প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুকে পৌঁছে দিতে এ গান।’ এছাড়া সমাজের প্রত্যেক শ্রেণিপেশার মানুষের চেতনায় বঙ্গবন্ধু ও তাদের উপলব্ধিকে এই ভিডিওতে তুলে ধরা হয়েছে। এ গানের ভিডিওতে মেহেরপুরের মুজিবনগরে একসঙ্গে হাজারো মানুষ মানচিত্রে শামিল হয়েছে এবং বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করেছে বাতি জ্বালিয়ে।
স্বনামধন্য নির্মাতা তানভীর আহমেদ জানান এই ভিডিওটিতে নতুন করে নতুন প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুকে অনুভব করবে এবং মানচিত্রের গভীরে বঙ্গবন্ধুকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। ইতিপূর্বে সৈয়দ তানভীর আহমেদ ‘বীরাঙ্গনা’ ও ‘পঁচিশে মার্চ’ এ দুটি গানের ভিডিও নির্মাতা। দুটি গানই ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে।
‘বঙ্গবন্ধু’ গানটি পার্পল ভিশনের ব্যানারে নির্মিত এবং এ গানটি আগামী ১৪ আগস্ট রিলিজ হবে।