৭ কোটি টাকা কোথায় গেলো , হিসাব চান বুলবুলের নেতাকর্মীরা

0
12
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

একেবারে শেষ মুহূর্তে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা। ৩০ তারিখের রাসিক নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শেষ মুহূর্তে বিরামহীন প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। শনিবার রাত ১২ টার পর থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচার প্রচারণা বন্ধ হয়ে যাবে।

ধারণা করা হচ্ছে ভোটের হিসেবে এবারের রাসিক নির্বাচনে প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী হচ্ছেন আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীত মেয়র প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন এবং বিএনপি থেকে মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।

১০ জুলাই প্রতীক বরাদ্দের পরপরই ব্যাপক প্রচারণায় নামে উল্লেখিত প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী। এতদিন পর্যন্ত বুলবুলের নির্বাচনী প্রচারণা স্বাভাবিকভাবে চালিয়ে গেলেও নির্বাচনী প্রচারণার শেষে এসে বেঁকে বসেছেন তার কর্মী সমর্থকরা। জানা গেছে, বুলবুলের কর্মী সমর্থকদের বেঁকে বসার পেছনে মূল ভূমিকা পালন করেছে নির্বাচনী খরচের জন্য বুলবুলের কাছে তারেকের পাঠানো ৭ কোটি টাকা। বুলবুলের কয়েকজন কর্মী সমর্থকদের সাথে কথা বলে জানা যায় নির্বাচনী প্রচারণার জন্য বুলবুলের কর্মী সমর্থকদের পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা দিচ্ছেন না বুলবুল। অথচ দলীয় সূত্রে তারা জানতে পেরেছেন দলের হাইকমান্ড থেকে বুলবুলকে নির্বাচনী খরচের জন্য ৭ কোটি টাকা দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি বুলবুলের এক নির্বাচন সংক্রান্ত মিটিংয়ে বুলবুলের কাছে উক্ত টাকার হিসেব জানতে চান তার কর্মী সমর্থকরা। কিন্তু বুলবুল কর্মীদের টাকা না দিয়ে কোন খাতে এসব টাকা খরচ করেছেন তার কোনো সঠিক হিসেব দিতে পারেন নি। এরপর গত এক সপ্তাহ যাবত বুলবুলের নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে অধিকাংশ নেতাকর্মী নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন।

একদিকে জনসমর্থনে ভাঁটা অন্যদিকে কর্মী সমর্থকদের বেঁকে বসা- সব মিলিয়ে এবারের রাসিক নির্বাচন নিয়ে বেশ বিপাকে রয়েছেন বুলবুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here