‘দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তারা স্ত্রী-সন্তানের নামে সম্পদ করেন’

42

নড়াইল কণ্ঠ: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) এএফএম আমিনুল ইসলাম বলেছেন, ‘দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তারা স্ত্রী ও সন্তানের নামে সম্পদ করেন। আর বলেন এই সম্পদ তার শ্বশুর বাড়ি থেকে পেয়েছি। পরে তদন্ত করে দেখা যায় সেগুলো দুর্নীতির মাধ্যমে উপার্জিত অবৈধ সম্পদ।’
বুধবার যশোরের চৌগাছায় জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন ও চৌগাছা উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত গণশুনানিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
স্থানীয় ডিভাইন সেন্টারের হল রুমে জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়ালের সভাপতিত্বে গণশুনানিতে বক্তৃতা করেন- দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয়ের পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান, চৌগাছা উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি সহকারী অধ্যাপক কামরুজ্জামান।
বক্তৃতা পর্ব শেষে জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়ালের সঞ্চালনায় শুরু হয় গণশুনানি পর্ব। গণশুনানিতে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের প্রায় ৪৫ জন ব্যক্তির লিখিত অভিযোগের শুনানি করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে সমস্যার সমাধান দেয়া হয়। গণশুনানিতে অভিযোগকারী আশরাফ আলী, বিল্লাল হোসেন, মাহবুবুল আশরাফসহ কয়েকজন সরাসরি তাদের অভিযোগ উত্থাপন করেন।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যশোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মুহাম্মদ রেজা-এ রাব্বী, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. দিলিপ কুমার রায়, চৌগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এসএম হাবিবুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইবাদৎ হোসেন, চৌগাছা পৌর মেয়র নূর উদ্দিন আল মামুন হিমেল, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক তমিজ উদ্দিনসহ আরো অনেকে।