লোহাগড়ায় ইউপি চেয়ারম্যানকে মারপিটের ঘটনায় মামলা

38

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার নোয়াগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম কালুকে মারপিটের ঘটনায় ৪ জনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার (০৩ জুলাই) আহত চেয়ারম্যানের ভাই বাদী হয়ে লোহাগড়া থানায় মামলাটি করেন।
এদিকে জানাগেছে, নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের মানিকগঞ্জ বাজারের একটি দোকান ঘর নির্মাণ ও গলিপথ নিয়ে বাজারের ব্যবসায়ী কাজী শরিফুল ইসলাম লাবুর সাথে গত সোমবার (২ জুলাই) বিকেলে বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নোয়াগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম কালুর কথা-কাটাকাটি হয়। এসময় একে অপরকে দেখে নেওয়ারও হুমকি দেওয়া হয়।
আহত চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম জানান, বিকেলের ঘটনার জের ধরে সোমবার (২ জুলাই) রাত নয়টার দিকে শামুকখোলা গ্রামের হাফিজার মোল্যা, শরিফুল মোল্যা, ইমদাদুল মোল্যা ও কাজী শরিফুল ইসলাম লাবু লাঠি দিয়ে পিঠিয়ে আমাকে গুরুতর আহত করে। তিনি আরো জনান, আমার মাথার আঘাত গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসক ঢাকায় যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।
এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম কালুর লোকজন লাঠিশোঠা, রামদাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মানিকগঞ্জ বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী কাজী শরিফুলের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে এবং হাফিজার মোল্যা শরিফুল ইসলামকে পিটিয়ে আহত করে। আহতদের লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ব্যবসায়ী কাজী শরিফুল ইসলাম লাবু জানান, বাজারের একটি গলিপথ নিয়ে চেয়ারম্যান ঝামেলার সৃষ্টি করে। তার লোকজন তাদের দু’জনকে মারধর করে আহত করেছে এবং দোকান ভাঙচুর করেছে।
এ ব্যাপারে লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রবীর বিশ্বাস জানান, হামলার ঘটনায় আহত চেয়ারম্যানের ভাই বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।