পার্বতীপুর মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

37

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার মহিলা ও শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানার বিরুদ্ধে চাকুরী পাইয়ে দেওয়ার নামে অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।
শুক্রবার (২৯ জুন) সকাল ১১ টায় পার্বতীপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন (চাকুরী প্রার্থী) ভুক্তভোগী নিভা সরকার ঈশা। তিনি নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার নিয়ামতপুর মুন্সিপাড়ার মৃত আ: রহিম সরকারের কন্যা। তিনি তার বক্তব্যে বলেন গত ০১/০১/২০১৮ তারিখে প্রকাশিত মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নিয়াগ বিজ্ঞপ্তি মোতাবেক উপজেলা ট্রেইনার পদে আমি চাকুরীর আবেদন করি এবং লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করি। ইতোমধ্যে পার্বতীপুর মহিলা ও শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানা আমাকে চাকুরী পাইয়ে দিবেন বলে ডেকে নিয়ে ২৫ হাজার টাকা গ্রহণ করেন। কিন্তু অন্য জায়গায় বেশি টাকা পাওয়ায় তিনি অন্য আরেক জনকে চাকুরী পাইয়ে দেন। আমার চাকুরী না হওয়ায় আমি তার নিকট প্রদত্ত টাকা দাবী করলে তিনি দিব দিচ্ছি বলে কালক্ষেপণ করছেন। আমার যথেষ্ট স্বাক্ষী প্রমান রয়েছে। এবিষয়ে ইতিমধ্যে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও জেলা প্রশাসক বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, আপনারা জাতির বিবেক আমার পিতা বেঁচে নাই। আমি একজন গরিব এতিম। আমার মত একজন এতিমের সাথে প্রতারণাকারি ওই কর্মকর্তার উপযুক্ত বিচার এবং আমার কষ্টের টাকা ফিরিয়ে পাইতে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি।
এবিষয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানার মতামত জানবার চেষ্টা করলেও তিনি তার মুঠোফোন পাওয়া যায়নি।