শ্রীদেবীর চরিত্রে দীপিকা

40

দীপিকা পাড়ুকোনের অভিনয় দক্ষতা নিয়ে কারও সন্দেহ নেই। অন্তত ‘বাজিরাও মস্তানি’ আর ‘পদ্মাবত’-এর পর বেশ কয়েক ধাপ ওপরে উঠে গিয়েছেন এই অভিনেত্রী। কিন্তু তাই বলে শ্রীদেবীর সঙ্গে তুলনা? সূত্রের খবর মানলে তাই-ই হতে চলেছে।
শোনা যাচ্ছে, এবার শ্রীদেবীর জুতোয় নাকি পা গলাতে চলেছেন বলিউডের মস্তানি। বলিউডের অন্দরমহল এখন এই খবর নিয়ে বেশ সরগরম। সেখানে গুঞ্জন, শ্রীদেবীর কোনো একটি ছবি নাকি রিমেক হবে। আর সেই ছবিতে অভিনয় করবেন দীপিকা পাড়ুকোন। তাও শ্রীদেবী যেই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন, সেই চরিত্রেই। তার জন্য নাকি দীপিকার কাছে অফারও চলে গিয়েছে। দীপিকা অবশ্য এখনো হ্যাঁ বা না কিছু বলেননি। ছবি নির্মাতাদের কথা মতো, ‘সাসপেন্স বজায় রেখেছেন নায়িকা।’ ছবির নাম নিয়েও এখনো কিছু ফাঁস করা হয়নি। কোন ছবিটি রিমেক হওয়ার কথা, জানা যায়নি তাও।
শুধু সূত্র থেকে খবর, দীপিকা নাকি ছবির বিষয়ে জানেন। আর তা এখন তিনি প্রকাশ করতে চান না। তাঁর হাতে এখন রয়েছে বিশাল ভরদ্বাজের ছবি। সেটি শেষ হলেই নাকি তিনি এই ছবির কাজে হাত দেবেন। তবে সে সবই এখন জল্পনা। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে অনিল কাপুর বলেছিলেন, ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’র সিক্যুয়েল হবে।
তিনি জানিয়েছিলেন, প্রতিটি ছবির নিয়তি নির্ধারিত থাকে আগে থেকেই। যখন তার সিক্যুয়েল হওয়ার থাকে, হয়। ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’র ক্ষেত্রেও তাই হবে। তবে এখনই যে সিক্যুয়েল হবে না, তাও জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু শ্রীদেবীর ছবিতে দীপিকার অভিনয়ের কথা প্রকাশ্যে আসার পর এই জল্পনার পালে হাওয়া লেগেছে। তাহলে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া ২’-এ নেই তো দীপিকা? তবে সেই সম্ভাবনা কম।
শোনা যাচ্ছে, শ্রীদেবীর যে ছবিটি রিমেক হতে চলেছে, সেটি দক্ষিণী। ওখানকারই কোনো এক প্রযোজক ছবিটি প্রযোজনা করেছিলেন। কিন্তু রহস্য বজায় রাখতে পুরনো ছবির নামও প্রকাশ্যে আনা হয়নি।