রেকর্ড গড়া ম্যাচে রোনালদোর পাশে লুকাকু

41

রাশিয়া বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেননি অনেক তারকা ফুটবলার। কিন্তু আলো ছড়িয়ে নিজের নামের প্রতি ঠিকই সুবিচার করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে চার গোল করে এতদিন এককভাবে এবারের বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। তাকে ছুঁয়েছেন বেলজিয়ামের রোমেলু লুকাকু।

২৩ জুন, শনিবার তিউনিসিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোলের দেখা পেয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই বেলজিয়ান তারকা। দুই ম্যাচ মিলিয়ে তার নামের পাশেও যোগ হয়েছে চার গোল। আগের ম্যাচে পানামার বিপক্ষেও জোড়া করেন তিনি।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে শুরু করে বেলজিয়াম। সেই আক্রমণে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন লুকাকু।

আগের ম্যাচে জোড়া গোল করা লুকাকু এদিনও যেন মরিয়া ছিলেন গোলের জন্য। ম্যাচের ১৬ মিনিট ও প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ের চতুর্থ মিনিটে দুটি গোল করেন বেলজিয়ামের এই সর্বোচ্চ গোলদাতা।

বিশ্বকাপে সব মিলিয়ে লুকাকুর গোল সংখ্যা পাঁচটি। আরেকটি গোলের দেখা পেলেই তিনি পেছনে ফেলবেন বিশ্বকাপে বেলজিয়ামের সর্বোচ্চ গোলদাতা মার্ক উইলমটসকে।

এদিন মস্কোর স্পার্তাক স্টেডিয়ামে তিউনিসিয়াকে গোলবন্যায় ভাসিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে বেলজিয়াম। প্রতিপক্ষের জালে গুণে গুণে পাঁচ গোল দিয়েছেন লুকাকু-হ্যাজার্ডরা। এই ম্যাচে হয়েছে আরও একটি রেকর্ড।

আজকের ম্যাচ ছিল বিশ্বকাপের ২৭তম ম্যাচ। এখন পর্যন্ত ২৭ ম্যাচের প্রত্যেকটিতে গোলের দেখা পেয়েছে কোনো না কোনো দল। অর্থাৎ এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচই গোলশূন্য থাকেনি।

১৯৫৪ সালে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপের টানা ২৬ ম্যাচে গোল হওয়ার রেকর্ড ছিল। এরপর কেটেছে ৬৪ বছর। এর মধ্যে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে ১৫ বার। কিন্তু কোনোবারই এই রেকর্ড ভাঙেনি।

শনিবার হ্যাজার্ডের পেনাল্টি কিকের মাধ্যমে ভাঙে দীর্ঘ ৬৪ বছরের রেকর্ড। হ্যাজার্ড নিজেও তার নাম তুলে নিয়েছেন রেকর্ড বইয়ের পাতায়।