নড়াইলে আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস পালিত

41

নড়াইল কণ্ঠ: “ট্রান্সফরমিং গভার্নেন্স টু দ্য সাসটেইনএবল ডেভেলপমেন্ট গোলস” (Transforming Governance to the Sustainable Development Goals) এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নড়াইলে আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস পালিত হয়েছে।
এ উপলক্ষে শনিবার (২৩ জুন) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কালেক্টরেট চত্বর থেকে এক র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়।

র‌্যালি শেষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও ভূমি সম্পর্কিত সেবার উপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাহাবুবুর রশীদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কামরুল আরিফ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো: ইয়ারুল ইসলাম, সদর উপজেলা ইউএনও সালমা সেলিম, নড়াইল সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: জসিম উদ্দিন হাওলাদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) মো: মেহেদী হাসান, জেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, সদর হাসপাতালের আরএমও ডা: মশিউর রহমান বাবু, কৃষি অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম নবী, সাধারণ সম্পাদক পরিতোষ বাগচি, বিটিভি’র প্রতিনিধি এনামুল কবীর টুকু, দৈনিক ওশানের সম্পাদক মো: আলমগীর সিদ্দিকী, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও নড়াইল কণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক কাজী হাফিজুর রহমান প্রমুখ।
জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, স্ব স্ব স্কুলের শিক্ষকের কাছে কেউ প্রাইভেট পড়তে পারবে না, প্রতিটি স্কুলের রুটিন যেন যথাযথভাবে পালন করা হয়। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মনিটরিং করবেন এবং জেলা সমন্বয় নিয়মিত অবহিত করবেন।
বক্তারা বলেন, সেবাগ্রহণকারী ও প্রদানকারী উভয়েরই সেবা প্রদান ও গ্রহণ সম্পর্কে আরো সচেতন হবে, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবে, তবেই সকলে কাজের প্রতি দায়িত্বশীল হবে এবং জনসেবা নিশ্চিত করাও সম্ভব হবে। এছাড়া বক্তরা আরো বলেন, স্ব স্ব দপ্তরের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করা এবং বিস্তারিত উল্লেখসহ সিটিজেন চাটার্ট প্রদর্শন করা। যাতে করে সাধারণ নাগরিক সেবা নিতে ও দিতে সহজ হয়। দুর্নীতি দমন কমিশন এর উদ্যোগে পরিচালিত আগামি প্রজন্মের মধ্যে নৈতিকতা ও মূল্যবোধ সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রতিটি মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল সমূহে “সততা স্টোর” চালু করতে হবে।
আলোচনা সভায় সরকারি-বেসরকারী বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী,সামাজিক, রাজনৈতিক প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।