জাতিসংঘের পুলিশ প্রধানদের সম্মেলনে আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী

38

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোর পুলিশপ্রধানদের দ্বিতীয় সম্মেলন। জাতিসংঘের ১৯৩টি সদস্য রাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনীর প্রধান এতে অংশ নিয়েছেন। এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীও।
২১ জুন, বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতিসংঘের ডেলিগেটস ডাইনিং রুমে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পুলিশপ্রধানদের সম্মানে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ সম্মেলনের শুরু হয়।
সম্মেলনের মূল আলোচনা অংশটিকে তিনটি পর্বে ভাগ করা হয়। এগুলো হলো ‘জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের চ্যালেঞ্জ’; ‘জাতিসংঘ পুলিশ, সহিংসতা প্রতিরোধ ও শান্তি বজায় রাখার ক্ষেত্রে জাতিসংঘ পুলিশের ভূমিকা’ এবং ‘দায়বদ্ধতা ও কর্মদক্ষতা’।
আলোচনা পর্বে অংশ নিয়ে আইজিপি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশের দক্ষতা বৃদ্ধির অব্যাহত প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরেন। আইজিপি শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে যৌন হয়রানি ও অসদাচরণ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি অনুযায়ী বাংলাদেশ পুলিশের সুদৃঢ় অবস্থান ও প্রতিশ্রুতির কথা তুলে ধরেন।
এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশ পরিমার্জিত ও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলেও উল্লেখ করেন জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি বলেন, ‘শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমাদেরকে প্রস্তুতি গ্রহণ এবং কৌশলগত পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে।’
সম্মেলনের উদ্বোধনী ভাষণ দেন জাতিসংঘ মহাসচিবের শেফ দ্য ক্যাবিনেট মারিয়া লুইজা রিবিরো ভায়োট্টি। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী পূর্ব তিমুরের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও জাতিসংঘ মহাসচিবের সাবেক বিশেষ প্রতিনিধি জোসে মস-হোরতা। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জাতিসংঘ পুলিশের ওপর নির্মিত একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।