পরিচ্ছন্ন নড়াইল গড়তে ১২০টি ডাস্টবিন স্থাপনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

84

নড়াইল কণ্ঠ : “আমাদের নড়াইল আমরাই রাখবো পরিচ্ছন্ন” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি-বিন-মুর্তজার নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নড়াইলে ডাস্টবিন স্থাপনা কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) দুপুর ১২টায় নড়াইল পৌরসভায় চৌরাস্তার সড়কের পাসে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন এর পরিবেশ গ্রুপের আহবায়ক কাজী হাফিজুর রহমান এর উপস্থাপনায় ডাস্টবিন স্থাপনা কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরী।

এ উপলক্ষে বিশেষে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম, নড়াইল পৌরসভার পেনেল মেয়র রেজাউল বিশ্বাস। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, পৌর কাউন্সিলর কাজী জহিরুল হক,নড়াইল প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মীর্জা নজরুল ইসলাম,নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো: শামীমুল ইসলাম টুলু, নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের জেনারেল সেক্রেটারি তরিকুল ইসলাম অনিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: কামরুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম পলাশসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

জানাগেছে, ১শ ২০টি ডাস্টবিন নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৯ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা। এর মধ্যে নড়াইল শহরে ১শ টি, লোহাগড়া পৌর এলাকায় ২০টি এবং পর্যায়ক্রমে কালিয়া পৌর এলাকায় প্রয়োজনীয় ডাস্টবিন স্থাপন করা হবে। এরই ধারাবাহিকতায় নড়াইল ও লোহাগড়ায় ডাস্টবিন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করা হলো।

উল্লেখ্য, এ কার্যক্রমে জেলা প্রশাসক ২লক্ষ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেছেন। অবশিষ্ট অর্থ নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন দিয়েছে। নড়াইল পৌরসভা কার্যক্রম সাসটেইন করার জন্য সার্বিকভাবে রক্ষানাবেক্ষণ করবেন। এ ব্যাপারে পৌর মেয়র মো: জাহাঙ্গীর বিশ্বাস সার্বিকভাবে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন।

এছাড়া এ বছরেই ৩টি অত্যাধুনিক পাবলিক টয়লেট স্থাপনের পরিকল্পনা চুড়ান্ত হয়েছে। লোহাগড়ায় ইতিমধ্যে জায়গার বরাদ্দা পাওয়া গেছে এবং নড়াইল পৌর এলাকায় ২টি পাবলিক টয়লেটের জায়গার ব্যাপারে জেলা প্রশাসক আশ্বাস দিয়েছেন দ্রুত ব্যবস্থা করা হবে।

উল্লেখ্য, নড়াইলের সন্তান জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি-বিন-মুর্তজার নেতৃত্বে ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ নামে একটি জনকল্যানমূলক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। ফাউন্ডেশন দুস্থ্য মানুষের স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষার উন্নয়নের জন্য আর্থিক সাহায্য, কম খরচে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন থাইরোকেয়ার বাংলাদেশ লিমিটেড নামে একটি ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার স্থাপন, শহরের দু’টি পয়েন্টে ফ্রি ওয়াইফাই ব্যবস্থা, তৃণমূল পর্যায় হতে ক্রিকেট, ফুটবল ও ভলিবল খেলোয়াড় অন্বেষন ও বাছাই করে তাদের সারা বছর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, অত্যাধুিনক জিম নির্মাণ, সাংস্কৃতিক কার্যক্রম, পরিবেশ, পর্যটনসহ ১০টি বিভাগে উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেছে।