বাংলাদেশ পাকিস্তানকে হারাল সাত উইকেটে

0
26
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

নড়াইল কণ্ঠ : প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ছয় উইকেটে হার দিয়েই নারীদের এশিয়া কাপ টি টোয়েন্টিতে যাত্রা শুরু করেছিল বাংলাদেশ। তবে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেই জয়ে ফিরল সালমা খাতুনের দল।
সোমবার (৪ জুন) শক্তিশালী পাকিস্তানকে সাত উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ক্রিকেট দল। বাংলাদেশী বোলারদের দাপুটে বোলিংয়ে এদিন মাত্র ৯৫ রানেই থামে পাকিস্তানি নারী দলের ইনিংস। জবাবে ১৩ বল সাত উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।
৯৬ রান তাড়া করতে নেমে অবশ্য শুরুতে হোঁচট খায় বাংলাদেশ। ইনিংসের চতুর্থ ওভারেই ওপেনার আয়েশা রহমানকে (৫) হারায় বাংলাদেশ। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি তিন নম্বরে নামা ফারজানা হকও (২)। তবে আরেক ওপেনার শামীমা সুলতানা ব্যাট হাতে শাসন করছিলেন পাকিস্তানি বোলারদের।
ব্যক্তিগত ৩১ রানে শামীমা ফিরে গেলেও নিগার সুলতানা ও ফাহিমা খাতুনের ব্যাটে ভর করে ১৩ বল ও সাত উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। নিগার ৩১ ও ফাহিমা ২৩ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।
মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে চলমান নারী এশিয়া কাপের চতুর্থ ম্যাচে টসে জিতে আগে বল করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সালমা। অধিনায়কের সিদ্ধান্ত সঠিক প্রমাণ করতেই যেন, শুরু থেকে পাকিস্তানকে চেপে ধরে বাংলাদেশি বোলাররা। দাপুটে বোলিংয়ে পাকিস্তানের রানের চাকার লাগাম টেনে ধরেন।
ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম সাফল্যের দেখা পান নাহিদা আক্তার। দুই বলের ব্যবধানে ফিরিয়ে দেন পাকিস্তানের দুই ওপেনার নাহিদা খাতুন (১৩) ও মুনীবা আলীকে (৭)। পরবর্তী সময়ে পাকিস্তানের দলীয় রান ৫০ থেকে ৫৭ পার হতেই আরও তিন উইকেট হারায় পাকিস্তান।
শেষ পর্যন্ত নিদা দার (১৭*) ও সানিয়া মিরের (২১*) ব্যাটে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯৫ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় পাকিস্তান। বাংলাদেশের হয়ে নাহিদা আক্তার নেন দুটি উইকেট। এ ছাড়া ফাহিমা, সালমা ও রুমানা আহমেদ নেন একটি করে উইকেট। ব্যাটে-বলে অলরাউন্ডার পারফরম্যান্স প্রদর্শন করে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতে নেন ফাহিমা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here