বাংলাদেশের কূটনীতিক প্রত্যাহারে পাকিস্তানের আলটিমেটাম

0
132

নড়াইল কণ্ঠ ডেস্ক : ইসলামাবাদে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর (রাজনৈতিক) মৌসুমি রহমানকে বৃহস্পতিবার বিকেলের মধ্যে প্রত্যাহার করতে বলেছে পাকিস্তান।

ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক নির্ভরযোগ্য সূত্রে ও ইনটারনেট থেকে জানা বুধবার (৬ জানুয়ারি) মৌসুমি রহমানকে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। তিনি পর্তুগালে বাংলাদেশ দূতাবাস যোগ দিতে যাচ্ছেন। ইসলামাবাদে তার জায়গায় কাকে পাঠানো হবে, সে ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রটি বলছে জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে ঢাকায় পাকিস্তানী মহিলা এক কূটনীতিককে চলে যেতে বলার পর থেকে ইসলামাবাদের পক্ষ থেকে পাল্টা পদক্ষেপের আশঙ্কা করা হচ্ছিল। সে কারণে আগে থেকেই তাকে পর্তুগালের দূতাবাসে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

জানা গেছে, গত মঙ্গলবার ইসলামাবাদে বাংলাদেশের হাই কমিশনার সোহরাব হোসেনকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে নিয়ে মৌখিকভাবে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মৌসুমি রহমানকে প্রত্যাহারের কথা বলা হয়। কেন এই প্রত্যাহারের নির্দেশ তার কোন ব্যাখ্যা দেয়নি পাকিস্তান।

ফারিনা আরশাদের বিরুদ্ধে জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগ তোলায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিল পাকিস্তান। তবে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা, তাদের কূটনীতিক ফারিনা আরশাদের বিরুদ্ধে জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগ তোলা নিয়ে পাকিস্তান খুবই নাখোশ ছিল। “একটা টিট-ফর-ট্যাট আসছে আমরা ধরেই নিয়েছিলাম।”

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়টি নিয়ে মুখ না খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ঢাকার কূটনৈতিক সূত্রে জানা, যুদ্ধাপরাধের বিচার নিয়ে পাকিস্তানের সাম্প্রতিক এক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে ঢাকা ও ইসলামাবাদের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক বর্তমানে তলানিতে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।