৫টি উপায়ে চোখ সুস্থ্য রাখতে পারেন

53

নড়াইল কণ্ঠ ডেস্ক : কারনে অকারনে আমরা চোখের যতœ না নেয়ার জন্য অকালে প্রকৃতির সব কিছু থেকে বঞ্চিত করে ফেলি নিজেকে। আমরা জানি মানুষের শরীরের অত্যন্ত সংবেদনশীল এবং গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলো চোখ। চোখ ছাড়া দুনিয়া অন্ধকার। তাই সব ধরনের ঝুঁকি এবং বিপদ থেকে চোখকে নিরাপদ রাখা খুবই জরুরি।
ল্যাপটব, ট্যাব, কম্পিউটার, মোবাইল, টিভি, অত্যধিক ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের দিকে তাকিয়ে থাকার জন্যে প্রায়ই আমাদের চোখে নানারকম সমস্যা দেখা দেয়। এর বেশিরভাগই আমরা এড়িয়ে চলি। যেমন- চোখ থেকে পানি পড়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, মাথা যন্ত্রণা, চোখ শুকিয়ে যাওয়া প্রভৃতি। এসব কিছু মোটেই এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ নয়। মারাত্মক কিছু রোগের পূর্ব লক্ষণ এগুলো। সুতরাং দৃশিক্তি ভালো রাখার জন্য কয়েকটি সহজ উপায় জেনে নেই-
০১. প্রত্যেক দিনের ডায়েটে তাজা ফল এবং সবজি রাখতে হবে। ফল এবং সবজি চোখকে বিভিন্ন রোগের প্রকোপ থেকে রক্ষা করে। যে সমস্ত খাবারে অ্যান্টি অক্সিডেন্টস রয়েছে যেমন, বিভিন্ন বেরি খেতে হবে।
০২. রোদে বের হলে ইউভি প্রোটেকশনযুক্ত সানগ্লাস ব্যবহার করুন। যাতে সূর্যের প্রখর তাপ চোখে লাগতে না পারে। এছাড়া চোখ ভালো রাখতে ধূমপান করা বন্ধ করতে হবে।
০৩. একটানা অনেকক্ষণ ডিজিট্যাল স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকা চলবে না। মাঝে মাঝে স্ক্রিন থেকে চোখ সরান। প্রতি ২০ মিনিট অন্তর কিছুক্ষণের জন্য কম্পিউটার, মোবাইল, টিভি স্ক্রিন থেকে চোখ সরিয়ে রাখুন।
০৪. প্রসাধনী চোখের জন্য ক্ষতিকর। অতিরিক্ত প্রসাধনী চোখে ব্যবহার করলে অ্যালার্জিক কনজাংটিভাইটিস, ব্লেফারাইটিস, স্টাই ইত্যাদি রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।
০৫. চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, চোখ ভালো রাখতে গেলে, সারাদিনে প্রচুর পরিমানে পানি খাওয়া প্রয়োজন। রোজ অন্তত ৬ থেকে ৮ গ্লাস পানি খেতে হবে। তার ফলে একদিকে যেমন চোখ পরিষ্কার এবং সুস্থ থাকবে, তেমনই ডিহাইড্রেশনেরও চিন্তা থাকবে না।