Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

দেশীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরা সম্মানগুলির অন্যতম ‘দেশিকোত্তম’ পুরস্কার। এবছর কি দেশের দুই প্রবীণ চলচ্চিত্র পুরোধাকেই এই সম্মানে সম্মানিত করা হবে?অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন এবং কবি গুলজারকে ‘দেশিকোত্তম’ দিতে চলেছে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। ‘দেশিকোত্তম’ ছাড়াও চিত্রকলা জগতে অবদানের জন্য ‘অবনগগন’ এবং পরিবেশ ও বিজ্ঞান জগতে অবদানের জন্য রথীন্দ্র পুরস্কারে সম্মানিত করে থাকে এই বিশ্ববিদ্যালয়।

এই দু’টি পুরস্কারের জন্যেও নাম মনোনীত করা হয়েছে। পাঁচ বছর পরে বিশ্বভারতীতে সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। সব কিছু ঠিক থাকলে মে মাসের তৃতীয় সপ্তাহে শান্তিনিকেতন আসতে পারেন আচার্য তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রসঙ্গত ২০১৩ সালে শেষ সমাবর্তন হয়েছে।
সোমবার বিশ্বভারতীতে একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠক ছিল। সেখানে পৌরোহিত্য করেন বিশ্বভারতীর ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সবুজকলি সেন। বৈঠকে সমাবর্তনের ‘দেশিকোত্তম’, ‘অবনগগন’ এবং ‘রথীন্দ্র’ পুরস্কার কাদের দেওয়া হবে তার একটি তালিকা তৈরী করা হয়। বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ প্রতি বছর মূলত তিনটি বিভাগে পুরষ্কার দিয়ে থাকে।

প্রথম বিভাগ বিশ্বভারতীর সর্বোচ্চ সম্মান ‘দেশিকোত্তম’। গত পাঁচ বছর সমাবর্তন না হওয়ার জন্য ২০১৮ সালে পাঁচ জন দেশিকোত্তম পাবেন। সমাজের পরিবর্তন, সমাজকে সচেতনতা-সহ একাধিক বিষয়ে দেশ এবং বিদেশে যারা কাজ করে চলেছেন তাঁদের সম্মানিত করতে এই পুরস্কার দেওয়া হয়ে থাকে।

এবার এই পুরস্কারের জন্য যাঁদের নাম প্রস্তাবিত হয়েছে তাঁরা হলেন— অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন, অধ্যাপক সুনীতি কুমার পাঠক, কবি গুলজার, লেখক অমিতাভ ঘোষ, সংগীতশিল্পী দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়, বিজ্ঞানী অশোক সেন এবং চিত্রশিল্পী যোগেন চৌধুরী।

একই ভাবে চিত্রকলা জগতে যাঁরা অসাধারণ কাজ করেছেন তাঁদের দেওয়া হবে ‘অবনগগন’ পুরস্কার। এবার এই পুরস্কারের জন্য প্রস্তাবিত হয়েছে পার্থপ্রতিম দেব, সুষেন্দ্রনাথ ঘোষ ও সুধীর পট্টবর্ধনের নাম।

রথীন্দ্র পুরস্কারের জন্য যাঁদের নাম প্রস্তাবিত হয়েছে তাঁরা হলেন— রাজেশ ট্যান্ডন, বিনায়ক লোহানি ও অমলেশ চৌধুরীকে। বিশ্বভারতীর তরফ থেকে এই প্রস্তাবিত নামগুলি খুব তাড়াতাড়ি প্রধানমন্ত্রী দফতরে পাঠানো হবে।

এই বিষয়ে বিশ্বভারতীর ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সবুজকলি সেন বলেন, ‘‘একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে দেশিকোত্তম, অবনগগন এবং রথীন্দ্র পুরস্কারের জন্য নাম মনোনীত করা হয়েছে। এই নামগুলি খুব তাড়াতাড়ি বিশ্বভারতীর আচার্য তথা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে।’’