Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

আর পাঁচটা তারকার মত সায়ন্তিকারও ইচ্ছা ছিল নেটিজেনদের নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাবেন৷ সেই মতো নিজের ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও আপলোড করেছিলেন নায়িকা৷ অভিনন্দন জানিয়েছেন সকল ভক্তদের৷ তাদের প্রতিক্রিয়ার জন্যও অপেক্ষা করবেন বলে উল্লেখ করেন তিনি৷ নতুন বছরে নতুন চমক নিয়ে আসছেন বলে প্রস্তুত থাকতে বললেন অনুরাগীদের৷ তবে নায়িকার এই ভিডিও নিন্দুকদের কবলে পড়ে৷ নববর্ষের শুভেচ্ছার বদলে শুরু হল ট্রোল বৃষ্টি।
নিজের চেহারার কারণে কটূক্তির শিকার হলেন সায়ন্তিকা৷ অতিরিক্ত রোগা হওয়ার জন্য একের পর এক খারাপ কমেন্টে ভরতে থাকে কমেন্ট বক্স৷
‘ডান্স বাংলা ডান্স’র সেটে ভিডিওটি রেকর্ড করে শেয়ার করেন অভিনেত্রী৷ পরনে ছিল লাল স্লিভলেস সালোয়ার৷ ভিডিওটি এমন অ্যাঙ্গেলে সেট করা হয় যার জন্য সায়ন্তিকাকে অন্য ছবি বা ভিডিওর তুলনায় একটু বেশিই রুগ্ন লাগে৷ গলার হাড় দুটি বেরিয়ে আসায় চোখে পড়তে থাকে সকলের৷ সেই নিয়েই শুরু হয় কমেন্ট৷ মাঝে মধ্যে একটা দুটো ভালো কমেন্ট দেখা গেলেও নিন্দার সংখ্যাই ঢের বেশি৷
“একটু খাওয়া দাওয়া কর৷ গালের ওই দুটো বাঁশের মতো হাড্ডি বেরিয়ে আছে৷”
“না খেতে পেয়ে শুকিয়ে গেছে মেয়েটা৷ ওকে আগে ক্লিনিকে ভর্তি করা হোক৷ কেরিয়ার মানুষকে সাইকো বানিয়ে ছেড়েছে৷ আমার তো সায়ন্তিকাকে রোগী বলে মনে হচ্ছে৷”
“কিউটনেস গন, শি লুকস সিক৷”
“দেখে ভয় পেয়ে গিয়েছি আমি৷ কেমন জানি কংকাল দেখলাম৷ দয়া করে আগের মত হও৷” এইসব কমেন্ট আসতে শুরু করেছে হু হু করে।
এরই মধ্যে কয়েকজন হিরোইনের শুভাকাঙ্খী হিসেবেও লেখেন, “তোমায় আগে দেখতে বেশি ভালো লাগত৷ আমার অবাক লাগে ভাবলে যে তোমরা সেলেব্রিটিরা ওজন কমাবার জন্য কেন ডেসপারেট হয়ে পড়েছ৷”
এরপর সায়ন্তিকার মেকআপ নিয়েও কটূক্তির শেষ ছিল না৷ কয়েকজন বলেন, “মেকআপের একটা লিমিট থাকে৷ এমনিই তো ভালো লাগত৷ জোকার বানাবার কি দরকার ছিল৷”
একটা সামান্য ভিডিওর পর এমন ট্রোলিংয়ের তোপে পড়বেন তা বোধহয় তিনি নিজেও ভাবেননি৷ তবে এই বিষয়ে নায়িকা এখনও মুখ খোলেননি৷