ভূমিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সেমিনার : নড়াইলে শতভাগ ভূমিকর আদায়

0
35
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলে ভূমি কর শতভাগ আদায় করা হয়েছে। আমাদের আমাদের দাবি ছিল ৩কোটি আদায়ও করেছি ৩ কোটি টাকা। কিন্তু লীজকৃত জমির লীজ মানি প্রায় ৮০ভাগ বকেয়া রয়েছে। তবে নিস্কন্টক জমি-জমা রাখতে হলে প্রয়োজন হলো নামজারি (মিউটেশন বা নামপত্তন) করা। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে নড়াইল সদরে সফলভাবে ই-নামজারির কাজ হচ্ছে এবং এ বছরের ৩০ জুনের মধ্যে নড়াইল জেলার প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায় ভূমি সহকারি কার্যালয়ের মাধ্যমে ই-নামজারির আওতায় আনা হবে। বুধবার (৪ এপ্রিল) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাহাবুবুর রশীদ উপরোল্লেখিত কথাগুলি বলেন।
সেমিনারে জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে পাওয়ারপয়েন্টে ভূমি সেবা বিষয়ের উপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাহাবুবুর রশীদ (উপ-সচিব) এবং সহযোগিতা করেন সদর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো: আজিম উদ্দিন রুবেল।
উপস্থাপিত প্রবন্ধের উপর আলোচনা রাখেন,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী, ভিপি কুশলী অ্যাডভোকেট হেমায়েতুল্লাহ হিরু, নড়াইল কণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক কাজী হাফিজুর রহমান, চেম্বর অব কমার্সে সভাপতি মো: হাসানুজ্জামান, সাংবাদিক জিয়াউর রহমান জামি প্রমুখ।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ডিডিএলজি মো: সিদ্দিকুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: কামরুল আরিফ, এডিএম ইয়ারুল ইসলাম, সদরের ইউএনও সালমা সেলিম,মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট এসএ মতিন, রাবেয়া ইউসুফ, এসি ল্যান্ড কালিয়াসহ সকল সহকারি ভূমি কর্মকর্তাবৃন্দ।
জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, ভূমি সেবা নিশ্চিত করতে হলে ভূমি অফিস, ভূমি রেজিস্ট্রি অফিস, ভূমি জরীপ বিভাগ ও সিভিল কোর্র্ট এর মধ্যে সুসমন্বয় একান্ত জরুরী। নড়াইলের ভূমি ব্যবস্থাপনায় বেশি সমস্যা বিরাজ করছে। এখানে বেশিরভাগ ভিপি জমি-জমা নিয়েই এ সমস্যাসমূহ রয়েছে। সর্বোপরি সকলের ছাড় দেয়ার মানসিকতা থাকতে হবে। সরকার ইচ্ছা করলে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করতে পারে।
তিনি আরো জানান, নড়াইলে মোট খাস জমির পরিমান রয়েছে ৯হাজার ১০২ একর। এরমধ্যে কৃষি খাস ২ হাজার ৩১১ একর এবং অকৃষি খাস রয়েছে ৬ হাজার ৭৯১ একর। এ বছর ভূমি কর শতভাগ আদায় করা হয়েছে। শুধূ বন্ধবস্ত জমির লীজ মানি আদায় হয়েছে ২০ ভাগ।
সেমিনার শেষে জেলায় ভূমি সেবায় বিশেষ অবদান রাখার জন্য ভূমি সহকারি কর্মকর্তা, অফিস সহকারিদের উৎসহ দেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক ও অতিথিবৃন্দ তাদের হাতে পুরস্কার তুলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here