নড়াইলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

119
SONY DSC
SONY DSC

নড়াইল কণ্ঠ : বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সফলতা কামনা করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, জেলা আ’লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস নড়াইল তথা দেশবাসির উদ্দেশ্যে জানান, ১৯৪৮ সালের ০৪ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয় ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হচ্ছে এশিয়ার অন্যতম প্রাচীন এবং বৃহৎ ছাত্র সংগঠন। বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটির জন্মে সবচেয়ে বেশি আত্মত্যাগীদের ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। ‘৫২,’৬২,’৬৬,৬৯ এর গণ অভ্যুথানের পথ বেয়ে ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির জনকের নেতৃত্বে আন্দোলনের অগ্রভাগে থেকেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটির জন্মের প্রতিটি গৌরবময় সংগ্রামে এই সংগঠনের প্রায় ১৮ হাজার নেতাকর্মী আত্ম বলিদান করেছেন। ১৯৭১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছিল বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সাংগঠনিক নেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামের অগ্রভাগে রয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নাম। কালের পরিক্রমায় নানা বাঁধা বিপত্তি,চড়াই-উৎরাই পার হয়ে ৬৯ বছরে পা দিয়েছে প্রাচীন ও গৌরবময় ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। ০৪ জানুয়ারি,২০১৬ গৌরব, এতিহ্য, সংগ্রাম, সংগ্রাম ও সাফল্যের ৬৮ বছর পার করছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় এ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর উদ্বোধন, কেক কাটা ও আনন্দ র‌্যালির মধ্যদিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের আয়োজনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নড়াইলে পালিত হয়েছে। শহরের রুপগঞ্জ বাসস্টান্ড চত্বরে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আশরাফুজ্জামান মুকুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু।

এসময় বক্তব্য রাখেন নবনির্বাচিত নড়াইল পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর হোসেন বিশ্বাস, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও নবনির্বাচিত কাউন্সিলর রেজাউল বিশ্বাস, নবনির্বাচিত কাউন্সিলর শরফুল আলম লিটু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাফিজ খান মিলন, সাবেক ভিপি জাহাঙ্গীর হোসেন ইকবাল, সাবেক ভিপি গাউসুল আযম মাসুম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক দেবাশীষ কুন্ডু মিটুল, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নিলয় রায় বাঁধন প্রমূখ।

আলোচনা সভা শেষে ৬৮ পাউন্ড কেক কাটেন অনুষ্ঠানের অতিথিবৃন্দ। পরে বর্নাঢ্য র‌্যালিটি শহরের রুপগঞ্জ বাসস্টান্ড চত্বর থেকে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে একইস্থানে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে জেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল মাহামুদ তুফানের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, কেক কাটা ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের মাল্টিপারপাস হল রুমে এ সময় পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি অলিদ খান, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল, নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখার সভাপতি মনিরুজ্জামান রোজসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।