নড়াইলে ছিনতাইকৃত ৪ আসামী গ্রেফতার, ওসিকে শোকজ

55

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার আমাদা গ্রামে পুলিশের কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া ৪ আসামীকে নড়াইলের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় কর্তব্যে অবহেলার কারণে লোহাগড়া থানার ওসি মোঃ শফিকুল ইসলামকে কারণ দর্শাতে নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ সুপার। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) দুপুরে পুলিশ সুপার মোঃ জসিমউদ্দিন পিপিএম সংবাদ সম্মেলন সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
উল্লেখ্য, গত রোববার (২৬ মার্চ) ভোরে লোহাগড়া উপজেলার লক্ষ্মীপাশা ইউপির আমাদা গ্রামে দাঙ্গা-হাঙ্গামার আসামিদের গ্রেফতরে লোহাগড়া থানা পুলিশ অভিযানে যায়। গোপন সংবাদেরভিত্তিতে খবর পেয়ে পুলিশ কামালপ্রতাপ গ্রামের একটি মাছের ঘেরে অভিযান চালিয়ে আমাদা গ্রামের রাঙ্গু খান (২৭), নাইস খান (২৫), গ্রাম পুলিশ দাউদ মল্লিকের ছেলে সোহেল মল্লিক (২৩) ও মন্টু মল্লিকের ছেলে সোহেল মল্লিককে (২০) গ্রেফতার করে। আসামী গ্রেফতার করার পরে আমাদা পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদের মাইক থেকে গ্রামে ডাকাত পড়েছে ঘোষণা দেয়া হয়। এ ঘোষণায় আসামিপক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় লোহাগড়া থানার এসআই গোবিন্দ আকর্ষন, এএসআই আনিসুজ্জামান, কাজী বাবুল ও বাবুল হাসান আহত হয় এবং ৪ আসামী পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় সোমবার বিকালে লোহাগড়া থানার এসআই গোবিন্দ আকর্ষন বাদী হয়ে ২১ জনের নামে মামলা দায়ের করেন।
উল্লেখ্য যে, লোহাগড়া উপজেলার আমাদা গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রায় আট মাস ধরে আবুল কাশেম খান সমর্থিত লোকজনদের সাথে একই গ্রামের আলী আহম্মেদ খান সমর্থিত লোকজনদের মধ্যে দ্বন্দ্ব-সংঘাত ও সংহিসতা চলে আসছে।