তীব্রমাত্রায় ভূমিকম্প অনুভুত, বাংলাদেশে নিহত ১

124

নড়াইল কণ্ঠ ডেস্ক : ৬.৭ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল ভারতের মণিপুর রাজ্যের ইম্ফলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪ জনে দাঁড়িয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন শতাধিক। পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ভূমিকম্পে ইম্ফল ও এর আশপাশের এলাকায় ভবন ধসে এ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ৪৭ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ৫টা ৭ মিনিট) ভূমিকম্পটি আঘাত ‍হানে।

এছাড়া ইম্ফলের একটি জনপ্রিয় মার্কেটসহ বিভিন্ন ভবনের দেয়ালে ফাটল দেখা দিয়েছে। কয়েকটি ভবনের কিছু অংশ ধসে পড়ার কথাও বলছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম।

শক্তিশালী এ ভূমিকম্প বাংলাদেশ, মায়ানমার ও ভুটানে অনুভূত হয়। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (‌ইউএসজিএস) প্রাথমিক এ কম্পনের মাত্রা ৬.৮ জানালেও এক ঘণ্টা পর তা কমিয়ে ৬.৭ জানায়।

শেষ রাতে প্রবল ভূ-কম্পনে কেঁপে উঠে সারাদেশ। রবিবার দিবাগত রাত ৫টা ৭ মিনিটে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় প্রবল ভূ-কম্পন অনুভূত হয়। রাজধানীর জুরাইন এলাকায় ভূমিকম্পের সময় আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে দ্রুত রাস্তায় নামতে গিয়ে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আতিকুর রহমান আতিক (২৭) নামে একজনের মারা গেছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া আহত হয়েছেন ২৯ জন।

রাতের শেষ ভাগে সবাই যখন ঘুমে অচেতন তখনই হঠাৎ করে কাঁপতে থাকে ঘরের আসবাবপত্র। ঘরের দেয়ালও যেন শব্দ করে উঠে, অনেকেরই ঘুম ভেঙে যায় সেই শব্দে। ততোক্ষণে প্রায় সবাই বুঝে গেছেন ভূমিকম্প হচ্ছে। কেউ কেউ বাসা ছেড়ে রাস্তা এবং খোলা জায়গায় বেরিয়ে আসেন। এরই মধ্যে কেউ কেউ ফোন করে খোঁজ নেন প্রিয়জনের।